Logo
Logo
×

বিনোদন

শ্রোতাদের মন জয় করলেন কে এইচ এন

Icon

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩০ মে ২০২৪, ০২:১৪ পিএম

শ্রোতাদের মন জয় করলেন কে এইচ এন

যাকে তাঁকে রক তারকা বলার প্রচেষ্টা, হার্ডরক গাইতে পারার সামর্থ্য না থেকেও প্রচার করা হচ্ছে তিনি অমুক, তিনি তমুক এমনটি বললেন শিল্পী কে এইচ এন। এর পরপরই বৈষ্টমী রকফেস্ট ২০২৪ এর প্রথম কনসার্ট-এ অংশ নিয়ে শ্রোতাদের মন জয় করলেন বাংলাদেশের রক, হার্ডরক ও থ্রাসমেটাল গানের গায়ক কে এইচ এন। এদিন তিনি তাঁর রক উইং কে সাথে নিয়ে শোনালেন একে একে সুরঞ্জনা, শ্রেয়া, রক্ত গরম, সাদাকালো, শিখাবাঈ, দ্বান্দ্বিক বস্তুবাদ, জিগোলো, মোহিনী, দুঃখওয়ালা, মা, সুখসহ তাঁর গাওয়া সেরা গানগুলো। 

বুধবার  রাজধানীর আগারগাঁওয়ের মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর মিলনায়তনে কে এইচ এন এর সাথে ওয়ারফেজের সাবেক ভোকাল মিজান  ও বাংলা ফাইভও দুর্দান্ত পারফর্মেন্স করে। 

এদিকে চলচ্চিত্র ও প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রযোজনা সংস্থা বৈষ্টমী তাঁদের নতুন চলচ্চিত্র শিল্পীসত্তার ট্রেলার দেখিয়ে বলেছে, ছবির গল্পটির আদ্যপান্ত জুড়ে রয়েছে বাংলাদেশের পপ মিউজিকের ইতিহাস, সাসপেন্স ও একটি কাল্পনিক নাকি পিঁটার মাইকেলের মত বাস্তব চরিত্র !  

বৈষ্টমী রকফেস্ট ২০২৪ এর ঘোষণা অনুযায়ী ৮টি কনসার্টের প্রথম কনসার্ট-এ মিজান এন ব্রাদার্স এবং ব্যান্ডদল বাংলা ফাইভ কে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন  সংস্থার সি ই ও আয়শা এরিন। 

এরিন জানান, "এই বছর আমরা রাজধানী ঢাকাসহ বিভাগীয় শহরে কনসার্টের আয়োজন করব। সেখানে আমরা সত্যিকারের হার্ডরক গায়ক কে এইচ এন ( বহুমাত্রিক কামরুল হাসান নাসিম) কে প্রত্যেকটি শোতে পাব বলে আশা করছি। এছাড়াও দেশের শীর্ষস্থানীয় সকল ব্যান্ডকেই আমরা যুক্ত করার উদ্যোগে যাব। উৎসবের অংশ হিসেবে সমাপনী কনসার্টটি নিয়ে বৃহৎ পরিকল্পনা আছে আমাদের। সম্মানিত করতে চাই রক ব্যান্ডের পুরোধা ব্যক্তিবর্গকেও। আগামী বছর এশিয়া প্যাসিফিক ও ইউরোপে বাংলাদেশের মিউজিককে তুলে ধরতে আমরা যৌথ উদ্যোগে কনসার্টের আয়োজনে যাব। বিদেশি শ্রোতা ও মিউজিশিয়ানদের প্রত্যাশা করে চলবে তেমন আয়োজন।"

এরিন তাঁদের ওটিটি মিউজিক প্ল্যাটফর্ম 'গুল্লুবুল্লু' ও  ভিন্ন ধারার স্টুডিও চ্যানেল অচিরেই বৈশ্বিক পর্যায়ের সাংস্কৃতিক মঞ্চ হিসাবে আসছে, তা উল্লেখ করেন।    

অন্যদিকে বৈষ্টমী রকফেস্ট ২০২৪ এর প্রথম আয়োজনে শুরুতেই পারফর্ম করে বাংলা ফাইভ। এরপরেই আসেন কে এইচ এন, তাঁর রক উইং  নিয়ে। তাঁর সাথে ড্রামারে ইসতিয়াক, লিড গিটারে সাদ্দাম রনি, বেইজে আজাদ ও কী বোর্ডে দীপু ছিলেন। শ্রোতাদের উচ্ছ্বাস ও উন্মাদনা শেষে মঞ্চে চলে আসেন মিজান। তিনি তাঁর স্বভাবসুলভ সেরা গানগুলো পরিবেশন করেন। 

প্রকৃতিবিরুদ্ধ শক্তির বিরুদ্ধে এমন প্রতিপাদ্যকে তুলে ধরে বৈষ্টমী বাংলাদেশের মিউজিকের প্রসারে লড়াই করতে চায়, তা জানান দিয়ে পরের কনসার্টটি ২১ জুন অনুষ্ঠিত হবে বলে ঘোষণাও রাখে। কনসার্ট অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন সাংবাদিক ও কলাম লেখক জব্বার হোসেন।কনসার্টের ইভেন্ট পার্টনার হিসাবে ছিল ইস্টিশন কমিউনিকেশনস।

যুগের চিন্তা ২৪ কর্তৃক প্রকাশিত
ই-মেইল: [email protected]

অনুসরণ করুন