Logo
Logo
×

জাতীয়

টানা বর্ষণে বান্দরবানে পাহাড় ধ্বস ও বন্যার আশঙ্কা

Icon

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০১ জুলাই ২০২৪, ০৫:০৬ পিএম

টানা বর্ষণে বান্দরবানে পাহাড় ধ্বস ও বন্যার আশঙ্কা

টানা বর্ষণে বান্দরবানে সাঙ্গু ও মাতামুহুরী নদীর পানি অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ছবি : সংগৃহীত

কয়েকদিনের টানা বর্ষণে বান্দরবানে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সাঙ্গু ও মাতামুহুরী নদীর পানি অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এভাবে ভারী বৃষ্টি অব্যাহত থাকলে নদীর পানি আরও বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমা অতিক্রম করে বন্যার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

গত শনিবার থেকে রোববার দুপুর পর্যন্ত থেমে থেমে মুষলধারে বৃষ্টিপাতে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়। বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় শিক্ষার্থী, কর্মজীবী পেশাজীবী মানুষের ভোগান্তি পড়তে হয়েছে কর্মস্থলে পৌঁছাতে। এদিকে, জেলার বেশ কয়েকটি জায়গায় ঘটেছে পাহাড় ধ্বসের ঘটনাও। সোমবার সকালে বান্দরবান-রুমা সড়কের বেতছড়া পুলিশ ক্যাম্প সংলগ্ন খুমী পাড়া এলাকায় পাহাড় ধ্বসে বন্ধ হয়ে গেছে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা। তবে স্থানীয়রা নিজেদের উদ্যোগে মাটি সরিয়ে ফেলায় ছোট যান চলাচল করেছে।

অন্যদিকে, ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে বৃষ্টিতে কয়েকটি এলাকায় দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা। জেলা শহরের ক্যচিংঘাটা, আর্মি পাড়া, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী বাজারসহ অলিগলি সড়কগুলো পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছে স্থানীয়রা।

বান্দরবান পৌরসভার মেয়র মো. শামসুল ইসলাম জানান, কয়েকদিনের টানা বর্ষণে পাহাড় ধ্বস এবং নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। এই পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমরা সতর্ক অবস্থায় আছি। পৌর এলাকায় ১৯টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বান্দরবান জেলা প্রশাসক শাহ মোজাহিদ উদ্দীন বলেন, দুর্যোগ মোকাবিলায় সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা আছে। ৭ উপজেলায় ২০৭টি স্কুল আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পাহাড় ধসের ঝুঁকিতে থাকা সব বসবাসকারীকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিতে ইতোমধ্যে প্রতিটি উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনওকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

যুগের চিন্তা ২৪ কর্তৃক প্রকাশিত
ই-মেইল: [email protected]

অনুসরণ করুন