Logo
Logo
×

রাজনীতি

আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের ‘স্বাধীন অস্তিত্ব’ থাকবে না: মির্জা ফখরুল

Icon

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০২ জুন ২০২৪, ০৪:০৯ পিএম

আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের ‘স্বাধীন অস্তিত্ব’ থাকবে না: মির্জা ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

রবিবার (২ জুন) দুপুরে বিএনপি দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ওপর অনুষ্ঠিত এক আলোচনাসভায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের ‘স্বাধীন অস্তিত্ব’ থাকবে না। আজকে আমাদের দায়িত্ব হয়ে পড়েছে আমাদের দেশকে রক্ষা করার জন্য, আমাদের স্বাধীনতাকে রক্ষা করার, আমাদের গণতন্ত্রকে রক্ষা করার।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম হলে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে এই আলোচনাসভা হয়।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘আমি আগেই বলেছি এই সরকার সরকার নয়, এরা বর্গী, ডাকাত, লুটেরা। এদের যদি আমরা প্রতিরোধ করতে না পারি, ঠেকাতে না পারি আমাদের দেশের অস্তিত্ব থাকবে না। আমার সমস্ত অভিজ্ঞতা দিয়ে আমি বলছি, আমরা স্বাধীন জাতি হিসেবে টিকে থাকতে পারব না। আসুন আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হই এবং আমরা দেশকে মুক্ত করার জন্য কাজ করি।

জিয়াউর রহমানের জীবন-কর্ম তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘‘জিয়াউর রহমানের প্রত্যেকটি কাজ দূরদৃষ্টিসম্পন্ন। ফারাক্কা, ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক, ইউরোপের সঙ্গে সম্পর্ক, চীনের সঙ্গে সম্পর্ক- প্রতিটা জিনিসের সঙ্গে তার দৃষ্টিভঙ্গি আছে। মেয়েদের কী করে ওপরে তুলবেন, শিশুদের কী করে মানুষ হিসেবে তৈরি করবেন, ছাত্রদের কী করে সঠিক পথে নিয়ে যাবেন- সেই কাজগুলো জিয়াউর রহমান করেছেন। জিয়াউর রহমানকে শুধু স্লোগানের ভাষা দিয়ে জানলে সঠিকভাবে বিচার করা হবে না।

তাকে বুঝতে হলে, তাকে জানতে হলে তার কাজ-কর্মের গভীরে যেতে হবে। ‘আমি মেজর জিয়া বলছি, আমি বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করছি…’ এই একটা কথার মধ্য দিয়ে তিনি মুহূর্তের মধ্যে হয়ে গেলেন সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক নেতা। তিনি একটা জাতির জন্ম ঘোষণা দিয়ে দিলেন। এটাই চিরন্তন সত্য যে এই জাতি যত দিন থাকবে, আমরা যত দিন থাকব জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতা ঘোষণা তত দিন থাকবে। এটা কোনো বিতর্কের বিষয় না, এটা প্রতিষ্ঠিত সত্য-ইউনিভার্সেল ট্রুথ।

ফখরুল বলেন, ‘কী ভয়াবহ চিন্তা করুন, পত্রিকা খুললে শুধু লুট আর লুট ছাড়া কিছুই পাবেন না। অদ্ভুত! কারা লুট করছে? যারা আমাদের সমাজে, রাষ্ট্রের বড় দায়িত্বে তারা। যারা আমাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী প্রধান আইজি তাদেরটা বেরিয়ে আসছে। সংসদ সদস্য চোরাচালানির সঙ্গে জড়িত, টুকরা টুকরা হয়ে যায়। মাদকপাচারকারীও সংসদ সদস্য ছিল কক্সবাজারের টেকনাফে। এটা কোনো সমাজ বলেন আপনারা? বাংলাদেশ ব্যাংক লুট হয়ে যায়, সোনা হারিয়ে যায়, ডলার-রিজার্ভ কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে নিয়ে চলে যাচ্ছে, ওদিকে ইন্টারন্যাশনাল হ্যাকিং হচ্ছে, মিলিয়নস অ্যান্ড মিলিয়ন ডলার নিয়ে চলে যাচ্ছে। কল্পনা করা যায়? শেয়ারবাজারে রথি-মহারথিরা লুটপাট করে শেষ করে দিচ্ছে, সাবেক অর্থমন্ত্রী মুহিত সাহেব (আবুল মাল মুহিত) বলেছেন, আমার কিছু করার নাই, ওদের হাত অনেক লম্বা। বাংলাদেশে এখন অনেক বড় বড় মানুষ, এত বড় বড় যে তাদের আশপাশে যাওয়া যায় না। কেউ দরবেশ, কেউ সন্ন্যাসী, কেউ বিরাট ধর্মীয় আলেম এসব লোকেরা এই কাজগুলো করছেন।’

তাদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দেখলে মনে হয় তারা আমাদের প্রভু উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ওই এক প্রভু আজকে কোথায় গেছে? এমনভাবে কথা বলত, পিস্তল দেখিয়ে বলত, এটা তোমাকে এমনি দেওয়া হয় নাই, এটা ব্যবহার করার জন্য দেওয়া হয়েছে। করেছেনও ব্যবহার, মানুষকে মেরেছে, গুম করে রেখে… এখন আপনি (বেনজীর আহমেদ) কোথায়? তার (বেনজীর আহমেদ) সম্পর্কে আবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রধান বলছেন, আমি তার সম্পর্কে কিছুই জানি না। তাহলে রাষ্ট্র কিছুই জানে না। তাহলে এটা রাষ্ট্র আছে এখন?’

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ফরহাদ হালিম ডোনারের সভাপতিত্বে মাহবুব আলমের সঞ্চালনায় আলোচনাসভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক নুরুল আমিন ব্যাপারী, অধ্যাপক লুৎফর রহমান, সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের সদস্যসচিব কাদের গনি চৌধুরী, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কামরুল আহসান, অধ্যাপক শামসুল আলম লিটন ও ডা. আবু নাছের বক্তব্য প্রদান করেন। এ ছাড়া প্রবীণ চিকিসক আবদুল হক, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আমিরুল ইসলাম কাগজীসহ পেশাজীবী নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

যুগের চিন্তা ২৪ কর্তৃক প্রকাশিত
ই-মেইল: [email protected]

অনুসরণ করুন